রামগড়ের ওয়াকছড়িতে সেটলার কর্তৃক আবারো পাহাড়িদের জায়গা বেদখলের চেষ্টা : ইউপিডিএফ-এর নিন্দা

0
3

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম

খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলার হাফছড়ি ইউনিয়নের ওয়াকছড়িতে সেটলাররা আবারো পাহাড়িদের জায়গা বেদখলের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়,আজ ৮ মে রবিবার সকাল ৯টার সময় মানিকছড়ির গচ্ছাবিল ও জামতলা থেকে ৩০-৪০ জনের একদল সেটলার ওয়াকছড়ি গ্রামে গিয়ে অবস্থান নেয়তারা সেখানে জঙ্গল পরিষ্কার করতে থাকলে স্থানীয় হাফছড়ি ইউনিয়নের মেম্বার উহ্লাপ্রু মারমা বাধা দিলেও সেটলাররা তার কথায় কর্ণপাত করেনিএ সময় সেটলাররা উক্ত জায়গা তাদের বলে দাবি করে এবং তারা কচু চাষ করবে বলে জানায়সেটলারদের এহেন অবস্থা দেখে স্থানীয় পাহাড়িরা অনেকে ভয়ে পালিয়ে যায়। ফলে সেখানে আতঙ্ক ও উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। এরপর ভূমি বেদখল ঠেকাতে পাহাড়িরা ঐক্যবদ্ধ হলে দুপুর ১২:৩০ টার দিকে সেটলাররা পিছু হটে যায় বলে সূত্র জানিয়েছে।

মানিকছড়ির গচ্ছাবিল থেকে মো: মোমিন, মো: সুলতান, মো: শফি এবং জামতলা থেকে মো: শাহাব মিয়া, মন্ডল, মো: ইউনুস, মো: সুলতান, মালেক ভান্ডারী, মো: শাহজাহান, মো: করিম, মো: ইউসুফ, মো: হাফিজুর , মো: গোদা মিয়া, ও মো: হাকিম-এর নেতৃত্বে সেটলাররা সংঘবদ্ধ হয়ে পাহাড়িদের জায়গা বেদখলের উদ্দেশ্যে ওয়াকছড়িতে গেছে বলে জানা গেছে

ইউনাইটেড পিপলডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা সমন্বয়ক প্রদীপন খীসা এক বিবৃতিতে উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন

বিবৃতিতে তিনি শনখোলা পাড়া সহ কয়েকটি পাহাড়ি গ্রামে হামলার রেশ কাটতে না কাটতে আবারো ওয়াকছড়িতে সেটলার কর্তৃক পাহাড়িদের জায়গা বেদখলের চেষ্টার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং অবিলম্বে সেটলারদের দ্বারা পাহাড়িদের জায়গা বেদখল বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকার ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান

উল্লেখ্য যে, গত ১৭ এপ্রিল ওয়াকছড়ি থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরে রামগড়ের শনখোলা পাড়া সহ কয়েকটি পাহাড়ি সেটলার কর্তৃক হামলা, অগ্নিসংযোগ ও ব্যাপক লুটপাটের ঘটনা ঘটে৷ এ ঘটনায় পর পাহাড়িরা এখনো আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় রয়েছে

 


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.