রামগড়ে ছেলের হাতে পিতা খুন ও এক মহিলার লাশ উদ্ধার, মাদকাসক্ত ছেলে আটক

0
2

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলায় উত্তর-দক্ষিণে আলাদা ২টি ঘটনায় সন্তান দ্বারা পিতাকে কুপিয়ে হত্যা ও অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ।

রামগড়ের বাগানটিলা এলাকায় বৈরাগী টিলায় মাদকাসক্ত ছেলের হাতে পিতা মোহাম্মদ হানিফ রশিদ(৫০) খুন হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ছেলে এরফান উদ্দীন(২২)কে আটক করেছে । অপর দিকে উপজেলার মুসলিমপাড়া এলাকা থেকে বোরকা পরিহিত অবস্থায় অজ্ঞাত এক মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার ১নং রামগড় ইউনিয়নের অংহলা পাড়ায় গ্রামীণ রাস্তার পাশে বোরকা পরিহিত অজ্ঞাত মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসি। পরে পুলিশ মহিলার লাশ উদ্ধার করে রামগড় থানায় নিয়ে যায়। রামগড় সার্কেল এ এসপি মো:শাহজাহান জানান মহিলার গায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

khagrachari ramghar 2kiled pic 24-02-2014জানা যায়, খাগড়াছড়ির রামগড় ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের অংহ্লাপাড়া এলাকার গ্রামীন রাস্তায় সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় রক্তাক্ত ও ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় অজ্ঞাত এক বাঙ্গালী মহিলা(৪৫), অপরদিকে রামগড় পৌরসভাধীন দক্ষিন সুদুর্কাবারী পাড়া  ৭নং ওয়ার্ডের বাগানটিলা নিজ বাড়ী থেকে জবাই ও কপালে কোপানো অবস্থায় মোহাম্মদ হানিফ রশিদ(৫০) এর লাশ উদ্ধার করেছে রামগড় থানা পুলিশ। তবে উর্ধ্বতন পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর এরফানকে আটক করা হয়। এই নিয়ে এলাকায় আত্মীয় স্বজনের মধ্যে ধুম্রজাল পরিবেশ সুষ্টি হয়েছে ।

তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, উপজেলার পৌর এলাকার বাগানটিলা এলাকায় পুত্রের হাতে পিতা খুনের ঘটনাটি ঘটেছে। সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসি ঘাতক ছেলেকে আটক করে রাখে। পরে এ ঘটনায় এরফান(২২)কে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এএসপি সার্কেল শাহজাহান হোসেন।

পুলিশ জানায়, অংহ্লাপাড়া এলাকার দিনমজুররা ঐ রাস্তা দিয়ে যাওয়ার পথে রাস্তার একপাশে রক্তাক্ত ও ক্ষতবিক্ষত লাশটি দেখতে পেয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের খবর দিলে তারা পুলিশকে জানান। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে জবাইকৃত মোহাম্মদ হানিফ রশিদ(৫০) এর লাশটি উদ্ধার করে রামগড় থানা পুলিশ। তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহ সহ মানসিক সমস্যাগ্রস্ত মোঃ এরফান নিজ পিতাকে ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘুমন্ত অবস্থায় জবাই ও কপালে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে এবং তার নিজ মাকেও হত্যা করার চেষ্টা চালায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় ঘটনাস্থল থেকে মোঃ এরফানকে আটক করে রামগড় থানা পুলিশ।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে রামগড় এএসপি সার্কেল শাহজাহান হোসেন এ প্রতিনিধিকে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ লাশ দুটি পৃথক পৃথক উদ্ধার করে। এব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অপরদিকে এ  প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অজ্ঞাত মহিলার লাশটির নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। এসময় রামগড় ১৬ বিজিবির প্রতিনিধি ঘটনাস্থল পরির্শন করেন।

রামগড় থানার অফিসার ইনর্চাজ জোবায়েরুল হক জানান, বাগানটিলা এলাকায় পুত্রের হাতে পিতা খুনের ঘটনার খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। অপরটি ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ীভাবে কুপিয়ে মহিলাকে হত্যা করা হয়েছে। উভয় লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে । এব্যাপারে  পৃথক পৃথক দুটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।  এ দুটি হত্যা কান্ডের ঘটনায় এলাকার সাধারণ জনগনের মনে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.