রুমায় পাহাড়িদের জমি হুকুম দখলের প্রতিবাদে বৈসাবি বর্জনের ঘোষণা

0
2

বান্দরবান প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
বান্দরবানের রুমা উপজেলায় নতুন করে সেনাবাহিনী ও বিজিবি ক্যাম্প সম্প্রসারণ এবং স্থাপনের নামে পাহাড়িদের বিশাল ভূমি হুকুম দখলের প্রতিবাদে রুমা এলাকাবাসী বৈসাবি বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে গতকাল ১২ এপ্রিল, মঙ্গলবার বিকালে জেলা সদরের সাংবাদিকদের মাধ্যমে এ ঘোষণা দেন৷ তারা বলেন, দুইশত বছরের ভোগদখলীয় সাড়ে ৯ হাজার একরের পাহাড়ি ভূমি সরকারি সংস্থার জন্য হুকুম দখল করা হলে রুমা উপজেলার তিনটি মৌজায় বসবাসরত প্রায় ১ হাজার উপজাতীয় পরিবার এলাকা থেকে উচ্ছেদ হয়ে পড়বে৷ মঙ্গলবার দুপুরে রুমা উপজেলা সদর বাজারে পানতলা মৌজা হেডম্যান মুংলাই ম্রোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ বৈসাবি বর্জনের ঘোষণা দেয়া হয়।

রুমা গ্যারিসনের আশপাশের তিন মৌজা পানতলা, সেংগুম এবং গালেংগ্যার ৯ হাজার ৫৬০ একর পাহাড়ি ভূমিতে বর্তমানে প্রায় ১২শপাহাড়ি পরিবারের বসতি রয়েছে। তারা প্রায় ২০০ বছর ধরে এসব পাহাড়ি ভূমিতে ফলজ-বনজ বাগান এবং কোন কোন এলাকায় জুমচাষ করে সেখানে উত্‍পাদিত কৃষিপণ্যের ওপর নির্ভর করেই জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন৷ এ বিশাল ভূমির একাংশ এসব পরিবারের বন্দোবস্তকৃত। রুমা সেনানিবাস কর্মকর্তাদের প্রস্তাব অনুসারে এলাকার এ তিনটি মৌজার ওইসব পাহাড়ি ভূমিতে নতুন করে সেনা ও বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের জন্য এ বিশাল পাহাড়ি ভুমি হুকুম দখলে নেয়ার কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।

এ কার্যক্রম শুরু হলেই এ তিনটি মৌজার প্রায় ১ হাজার পরিবার ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ হবে। তারা জীবিকা নির্বাহের ক্ষেত্রেও অনিশ্চিত অবস্থায় পড়বেন। ফলে এখানে নতুন করে সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে বলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.