লংগদু গুচ্ছগ্রাম সভাপতির সরকারি চাল আত্মসাৎ : দু বছর কারাদণ্ড

0
0
লংগদু প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
রাঙামাটি জেলার লংগদু থানাধীন গুচ্ছগ্রামবাসীর জন্য বরাদ্দকৃত সরকারি চাল বিতরণে কারচুপি করে ২ লাখ ৯৬ হাজার ৭৪০ টাকা আত্মসাতের দায়ে প্রকল্পের সভাপতি মৌলভী নজরুল ইসলামকে দুবছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই রায়ে তাকে আত্মসাকৃত চালের সমপরিমাণ মূল্যও জরিমানা করা হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বর্তমানে পলাতক রয়েছেন।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ২টায় আদালতের বিভাগীয় বিশেষ জজ আতাউর রহমান এ আদেশ দেন।
এ ব্যাপারে বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিশেষ রাষ্ট্রপক্ষীয় কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী সুপ্রভাত বাংলাদেশকে বলেন, আসামির বিরুদ্ধে ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তাকে দুবছরের কারাদ- ছাড়াও ৫ হাজার টাকা অর্থদ- এবং অনাদায়ে ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৮ সালের ২৯ জুন রাঙামাটির লংগদু থানাধীন গুচ্ছগ্রামের ৩৯২টি পরিবারকে কার্ডপ্রতি ২৭৩ কেজি করে চাল বিতরণের একটি প্রকল্পে সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন মৌলভী নজরুল ইসলাম। এই উদ্দেশে তিনি ১০৭ মেট্রিক টন চাল উত্তোলন করেন। কিন্তু এর মধ্যে ২৬৪টি পরিবারকে বরাদ্দকৃত চাল বিতরণ করে বাকি ২২ মেট্রিক টন চাল থানার তকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুর রহমানসহ পরস্পর যোগসাজশে আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে। এ অভিযোগে ওই বছরের ২৩ জুলাই দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় একটি মামলা দায়ের হয়। তদন্তের পর ২০০৮ সালের ১৭ মার্চ আদালতে এই মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়। চার্জশিটে ১২ জনকে সাক্ষী করা হয়। বিচারে এই পর্যন্ত ৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। তবে মামলার অপর অভিযুক্ত লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।
—–


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.