লক্ষ্মীছড়িতে চলছে শেষ মুহুর্তের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা

0
0

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
Laxmichari U electionচতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ২য় দফায় খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়িতে এখন চলছে শেষ মুহুর্তের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারী এ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সেনাবাহিনী, বিজিব মোতায়েন থাকবে বলে প্রশাসন জানিয়েছে।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার সবচেয়ে ছোট ও দূর্গম উপজেলা হল লক্ষ্মীছড়ি। এ জেলা সদরের ৭৬ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় ইউনিয়ন সংখ্যা মাত্র ৩টি। উপজেলার মোট জনসংখ্যা প্রায় ২১,৫৩২ জন।

নির্বাচনকে ঘিরে লক্ষ্মীছড়ির প্রত্যন্ত অঞ্চল এখন পোষ্টার, ব্যানার ও নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় মুখর। নির্বাচন আচরণ বিধি মোতাবেক দুপুর ২টা থেকে চলছে মাইকিং ও গণসংযোগ। জেলার ১ম পর্যায়ের নির্বাচনের মত লক্ষ্মীছড়িতেও আওয়ামী লীগ-বিএনপি’র পাশাপাশি পাহাড়ি আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠনগুলো অংশ নিয়েছে।

চেয়ারম্যান পদে সুপার জ্যোতি চাকমা (আনারস), মো. মাইনুল ইসলাম (ঘোড়া), স্বপন চাকমা (দোয়াত কলম), সাথোয়াইঅং মার্মা(মোটর সাইকেল) ও প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন। আরেক পদপ্রার্থী নীলবর্ন চাকমা(কাপ-পিরিচ) নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা থেকে সম্পূর্ণ বিরত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংগ্যপ্রু মার্মা (চশমা) ও রতন বিকাশ চাকমা (টিউবওয়েল) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেবী রানী বসু(পদ্ম ফুল) এবং সুমনা চাকমা(তীর ধনুক) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আবদুল খালেক জানান, লক্ষ্মীছড়িতে আগামী ২৭-শে ফেব্রুয়ারী উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জেলার সবচেয়ে দূর্গম উপজেলায় সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব প্রকার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নির্বাচনের ২ দিন আগে ২৫-শে ফেব্রুয়ারী থেকে ১লা মার্চ পর্যন্ত পুলিশের পাশাপাশি স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনা ও বিজিবি মোতায়ন করা হবে।

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার মোট ভোটার সংখ্যা ১৫,৯০৫ জন। যার মধ্যে মহিলা ভোটার সংখ্যা ৭,৬৩০ জন এবং পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৮,২৭৫ জন। ভোটগ্রহণ চলবে ১১টি কেন্দ্রে।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.