বৌদ্ধভিক্ষু হেনস্থার প্রতিবাদে

লক্ষ্মীছড়িতে সেনাবাহিনীর অনুষ্ঠান বর্জন করায় জনপ্রতিনিধিদের হুমকি জোন কমান্ডারের

0
2

laxmichariলক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি।। বৌদ্ধ ভিক্ষু হেনস্থার প্রতিবাদে খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়িতে সেনাবাহিনীর আয়োজিত অনুষ্ঠান বর্জন করায় জনপ্রতিনিধিদের নানা হুমকি দিচ্ছেন জোন কমান্ডার আবুল কালাম শামসুদ্দিন রানা ও জোনের উপ অধিনায়ক মোঃ রাসেল।

উল্লেখ্য, গত ৩০ অক্টোবর ২০১৬ লক্ষ্মীছড়ি সদরের কুশিনগর বনবিহারে আয়োজিত কঠিন চীবর দানোৎসবে আসা রাঙামাটি রাজবন বিহারের জ্ঞানপ্রিয় মহাস্থবির, ফুরমোন ভাবনা কেন্দ্রের ভৃগু মহাস্থবির-কে গাড়ি আটকিয়ে হেনস্থা, তল্লাশি ও নান্যাচর রত্নাঙ্কুর বনবিহারের বিশুদ্ধানন্দ মহাস্থবির-এর গাড়িকে ঘন্টাখানিক আটকিয়ে রেখে হয়রানির প্রতিবাদস্বরূপ গতকাল বুধবার (২ নভেম্বর) সেনাবাহিনীর ৮ ফিল্ড রেজিমেন্টের লক্ষ্মীছড়ি জোনের ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত প্রীতিভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফুটবল খেলাসহ সেনাবাহিনী কর্তৃক আয়োজিত সকল অনুষ্ঠান বর্জন করে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কার্বারী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

এই অনুষ্ঠান বর্জনকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীছড়ি জোন কমান্ডার আবুল কালাম শামসুদ্দিন রানা জনপ্রতিনিধিদের হুমকি দিয়ে বলেন, “এর জন্য শুধু জনপ্রতিনিধিরা নয়, গোটা উপজেলার জনগণকে(বিশেষত পাহাড়িরা) এর খেসারত দিতে হবে।” এছাড়াও জোনে উপ অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বে থাকা মোঃ রাসেল মোবাইলে এক জনপ্রতিনিধিকে “বাঘাইছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যানের পরিণতি ভোগ করতে হবে” বলে হুমকি দেন এবং তাঁর সাথে তুচ্ছতাচ্ছিল্য আচরণ করেন।

স্থানীয় সূত্রে আরো জানা যায়, গতকাল বুধবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত সেনা সদস্যরা লক্ষ্মীছড়ি থানার সামনে সাধারণ লোকজনকে মোটর সাইকেল ও গাড়ি থেকে নামিয়ে তল্লাশি, নাম জিজ্ঞাসাসহ নানা হয়রানি করে। রাত ৮টার সময় একজন কলেজ পড়ুয়া ছাত্র ও মোটর সাইকেল ড্রাইভারকে জুর্গাছড়ি ব্রিজে আটক করে নানা হয়রানি করার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় পিসিপি’র ডাকা অবরোধকে ইস্যু করে সেনা সদস্যরা সদর ইউনিয়নের মেম্বার সাজাউ মার্মা ও তার ছেলে অনার্স পড়ুয়া ছাত্র মংসাউ মার্মাকে বেদম মারধর করে। পরে জনগণের চাপের মুখে সেনারা তাদেরকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

এলাকার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কার্বারী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের অভিযোগ, জোন কমান্ডার আবুল কালাম শামসুদ্দিন রানা যোগদানের পর থেকেই লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় সাধারণ জনগণের উপর নির্যাতন ও হয়রানির ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব বন্ধে তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
——————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.