লক্ষ্মীছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক ইউপিডিএফ’র দুই সংগঠকসহ ৩ জনকে গ্রেফতার

0
1

লক্ষ্মীছড়ি : খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার যতীন্দ্র কার্বারী পাড়া থেকে সেনাবাহিনী কর্তৃক ইউপিডিএফ’র দুই সংগঠকসহ তিন জনকে গ্রেফতারের খবর পাওয়া গেছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মৃগীরোগাক্রান্ত স্থানীয় এক যুবকও রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ বুধবার (৩০ মে ২০১৮) বেলা আড়াইটার দিকে লক্ষ্মীছড়ি সেনা জোন থেকে একদল সেনা সদস্য যতীন্দ্র কার্বারী পাড়ায় হানা দিয়ে ইউপিডিএফ’র লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা ইউনিটের সংগঠক পুলক চাকমা ও অমর চাকমাকে গ্রেফতার করে জোনে নিয়ে যায়। পরে সেনারা জোন থেকে আবারও তাদেরকে নিয়ে ওই এলাকায় যায় এবং সেখানে তাদের উপর ব্যাপক শারীরিক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে সেনারা সেখানে ইউপিডিএফ সদস্যদের ব্যবহৃত একটি বাড়িতে গিয়ে তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তল্লাশি চালিয়ে জিনিসপত্র সম্পুর্ণ তছনছ করে দেয়। সেখানেও আরেক দফায় তাদের উপর শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়।

এ সময় সেনারা চিক্কন্যা চাকমা(২২) নামে ওই গ্রামের মৃগীরোগাক্রান্ত এক যুবককেও গ্রেফতার করে এবং তার উপরও শারীরিক নির্যাতন চালায় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

সেনাদের মারমুখি অবস্থানের কারণে এ সময় এলাকার জনমনে ব্যাপক আতঙ্ক দেখা দেয়। ভয়ে অনেকে যে যেদিকে পারে পালিয়ে যায়।

প্রায় সাড়ে ৪ ঘন্টা পর্যন্ত সেখানে তাণ্ডব চালানোর পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে গ্রেফতারকৃতদের নিয়ে সেনারা সেখান থেকে জোনে চলে যায় বলে জানা গেছে।

ইউপিডিএফ-এর নিন্দা ও প্রতিবাদ
ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক সচিব চাকমা এক বিবৃতিতে উক্ত গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

ইউপিডিএফ’র উপর চরম রাজনৈতিক দমন-পীড়ন চালানো হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, সরকার-সেনাবাহিনী পরিকল্পিতভাবে একদিকে নব্য মুখোশ ও জেএসএস সংস্কারপন্থী সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিয়ে ইউপিডিএফ নেতা-কর্মী-সমর্থকদের হত্যা-গুম-অপহরণ করছে, অপরদিকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার-নির্যাতনসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে নানা হয়রানি করছে।

বিবৃতিতে তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, শত দমন-পীড়ন চালিয়েও ইউপিডিএফকে দমিয়ে রাখা যায়নি, ভবিষ্যতেও যাবে না। সকল ধরনের নিপীড়ন-নির্যাতন ও বাধা-বিপত্তি মোকাবেলা করে মুক্তিকামী জনগণকে সাথে নিয়ে ইউপিডিএফ তার ন্যায়সঙ্গত আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

ইউপিডিএফ নেতা অবিলম্বে অন্যায় দমন-পীড়ন ও ধরপাকড় বন্ধ করে পার্বত্য চট্টগ্রামে সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিসহ গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

———————–
সিএইচটিনিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.