লক্ষ্মীছড়ির দুল্যাতলীতে পিসিপি’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সেনা হামলা : আহত ১০

0
0

লক্ষীছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার দুল্যাতলীতে জেএসসি ও প্রাইমারী স্কুল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীদের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে সেনা সদস্যরা হামলা চালিয়েছেএতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি অংগ্য মারমা, হাজাছড়ি গ্রামের বাসিন্দা ভেলু মা (৫৫) সহ কমপক্ষে (১০) ব্যক্তি আহত হয়েছেন। অংগ্য মারমার বাম চোখের উপরে এবং ভেলু মা ডান চোখসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতপ্রাপ্ত হন

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে আজ ৪ মার্চ শুক্রবার উপজেলা সদর থেকে ৫ কিলোমিটার উত্তরে দুল্যাতলী ইউনিয়নের চাইল্যাতলীতে উক্ত সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়৷ অনুষ্ঠান শুরু হলে দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে লক্ষীছড়ি জোন থেকে ৩ গাড়ি আর্মি গিয়ে প্রথমে অনুষ্ঠানস্থল ঘিরে ফেলে এবং আয়োজকদের কাছ থেকে ভিডিও ক্যামেরা কেড়ে নেয়। এরপর সেনারা অনুষ্ঠান ভণ্ডুল করতে অংশগ্রহণকারীদের ওপর বেধড়ক লাঠিপেটা, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও গুলি বর্ষণ করলে এতে অনেকে আহত হন উপস্থিত লোকজন ছত্রভঙ্গ হয়ে যান এবং প্রাণের ভয়ে দিকবিদিক ছুটোছুটি করতে থাকেন।

হামলার পর সেনারা ক্যাম্পে ফিরে গেলে লোকজন আবার জাড়ো হয়ে অসমাপ্ত অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন পিসিপি উপস্থিত শিকদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করে

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ক্যহাচিং মারমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি রেমিন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি রিকু চাকমা ও ইউপিডিএফ-এর লক্ষীছড়ি উপজেলা ইউনিটের সংগঠক শুক্ল চাকমা এক যৌথ বিবৃতিতে উক্ত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন

তারা বলেন, আজ পার্বত্য চট্টগ্রামে সকল প্রকার নাগরিক অধিকার সেনাবাহিনীর বুটের তলায় পিষ্ট। পাশ করা ছাত্রছাত্রীদের জন্য একটা সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান পর্যন্ত আয়োজন করা যায় না। লংগুদু হামলার মতো সাধারণ লোকজনের ওপর নির্যাতনের বিরুদ্ধেও কোন প্রতিবাদ করা যায় নাউগ্র বল প্রয়োগ করে কিংবা নানা ষড়যন্ত্র করে এসব গণতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণ কর্মসূচীগুলো ভন্ডুল করে দেয়া হয়

তারা আরো বলেন, এটা আজ স্পস্ট সেনাবাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামের রাজনীতিকে অস্থিতিশীল করার মাধ্যমে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিতে চাইছে। তাদের এই চক্রান্ত পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণ প্রতিহত করবে

এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে পানছড়ি ও খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ। বিকাল ৩টার সময় পানছড়িতে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিলটি মিছিলটি কলেজ গেট থেকে শুরু হয়ে বাস স্টেশঘুরে আবার কলেজ গেটে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ আয়োজন করে।এতে বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক হরিকমল ত্রিপুরা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অর্পণ চাকমা৷ এছাড়া বিকাল সাড়ে ৪টার সময় খাগড়াছড়ি সদরের স্বনির্ভর বাজার থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়সেখানেই সংক্ষিপ্তভাবে বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক থুইক্যসিং মারমা, খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক উমেশ চাকমা ও খাগড়াছড়ি কলেজ শাখার সভাপতি বিপুল চাকমা

বক্তারা অবিলম্বে হামলাকারী সেনা সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানান এবং গণতান্ত্রিক কর্মসূচির প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন

বক্তারা পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনী প্রত্যাহারপূর্বক সেনাশাসনের অবসানের দাবি জানান


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.