লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমার কাছ থেকে অস্ত্র পাওয়ার ঘটনা সাজানো নাটক

0
1

খাগড়াছড়ি: পার্বত্য চট্টগ্রাম নির্বাচিত জুম্ম জনপ্রতিনিধি সংসদ আজ ০২ জানুয়ারি ২০১৭ সোমবার সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে সংঠনের সাধারণ সম্পাদক এবং লক্ষীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমাকে গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছে সুপার জ্যোতি চাকমার কাছ থেকে অবৈধ অস্ত্র পাওয়ার ঘটনা সর্বৈব মিথ্যা, বানোয়াট এবং সাজানো নাটক।

bibritiজুম্ম জনপ্রতিনিধি সংসদের সভাপতি ও পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা, সহসভাপতিগণ যথাক্রমে খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমা, দীঘিনালা উপজেলা চেয়ারম্যান নবকমল চাকমা, মহালছড়ি উপজেলা চোয়ারম্যান উক্ত বিবৃতি প্রদান করেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, লক্ষীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সুপারজ্যোতি চাকমা’র কাছ থেকে অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে বলে যে তথ্য সংবাদ মাধ্যমে প্রদান করা হয়েছে তার সত্যতা নিয়ে আমরা চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, লক্ষীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান নিয়মিত বিভিন্ন সরকারী কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন এবং বিগত কয়েকদিন আগে খাগড়াছড়ি জেলার আইনশৃংখলা বিষয়ক মিটিঙেও অংশগ্রহণ করেছেন। এছাড়া তিনি লক্ষীছড়ি উপজেলার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক-সামাজিক-উন্নয়নমূলক কাজসহ সরকারী কর্মসূচিতেও নিয়মিত অংশগ্রহণ করে আসছেন। মূলত, তাকে প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে উল্লেখ করে বলেন, তিনি প্রতিহিংসার শিকার হয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বেশ কয়েকদিন আগে লক্ষীছড়ি উপজেলায় একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু শ্রদ্ধাস্পদ ভিক্ষুগণকে সেনা চেকপোস্টে তল্লাশীর নামে হেনস্থা করা হয়। এই ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ জন্মে। বৌদ্ধ ভিক্ষুদের হেনস্থার প্রতিবাদে এলাকাবাসী সেনাবাহিনীর উদ্যোগে আয়োজিত খেলাধুলার অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান স্বতস্ফুর্তভাবে বর্জন করে। উক্ত ঘটনার পর থেকে সুপার জ্যোতি চাকমার উপর স্থানীয় সেনা কর্তৃপক্ষ নাখোশ হয় এবং সুপার জ্যোতি চাকমাকে এর পরিণাম ভোগ করতে হবে বলে হুমকিও প্রদান করা হয়। মূলত, এই ঘটনার সূত্র ধরে সুপার জ্যোতি চাকমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে উল্লেখ করেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সুপার জ্যোতি চাকমার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিসহ তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।
—————–

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.