লামায় বিজিবি সদস্য কর্তৃক দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে ঢাকায় বিক্ষোভ

0
2

ঢাকা : বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রাংখতি ত্রিপুরা পাড়ায় বিজিবি’র তিন সদস্য কর্তৃক দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে ঢাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ঢাকা শাখা।

আজ শনিবার (২৫ আগস্ট ২০১৮) বিকাল ৩ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পিসিপি ঢাকা শাখার সভাপতি রিয়েল ত্রিপুরা এবং সঞ্চালনা করেন হিল উইমেন্স ফেডারেশন ঢাকা শাখার সদস্য সচিব নীতি চাকমা। এতে বক্তব্য রাখেন,ইউপিডিএফ-এর কেন্দ্রীয় সদস্য নতুন কুমার চাকমা, পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি বিপুল চাকমা, ডিওয়াইএফ’র কেন্দ্রীয় যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বরুন চাকমা, এইচডব্লিউএফ’র কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমা ও ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স  ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-এর কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক শান্তি চাকমা।

ইউপিডিএফ এর কেন্দ্রীয় সদস্য নতুন কুমার চাকমা তাঁর বক্তব্যে বান্দরবানের লামায় বিজিবি’র তিন সদস্য কর্তৃক দুুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। তিনি বলেন, সভ্য দেশে ক্ষুদ্র জাতিস্বত্তাসমূহকে দেশের সম্পদ মনে করা হয়। অথচ বর্তমান ফ্যাসিবাদি এই  সরকার বাংলাদেশে সংখ্যালঘু জাতিস্বত্তাসমূহের ধ্বংসের চক্রান্ত চালাচ্ছে। সরকারের এই চক্রান্ত হতে উত্তরণে সকল শ্রেণী ও পেশাজীবিদের লড়াই সংগ্রামে সামিল হওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

পিসিপি কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি বিপুল চাকমা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ধর্ষণ শুধু পার্বত্য চট্টগ্রামে নয়, সারা বাংলাদেশে এটি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। কিছুদিন আগেও দীঘিনালায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী কৃত্তিকা ত্রিপুরাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। অথচ তার সঠিক বিচার আমরা এখনো পাইনি। মূলত সরকারের এই বিচারহীনতার কারণেই পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বার বার ধর্ষণের মত ঘটনা ঘটছে এবং অপরাধীরা পার পেয়ে যাচ্ছে।

এইচডব্লিউএফ কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমা বলেন, বর্তমান ফ্যাসিবাদি সরকারের দায়িত্ব এবং বিচারহীনতার কারনে প্রতিনিয়ত পার্বত্য চট্টগ্রামে ধর্ষণ, খুন, গুম এর মত ঘটনা অহরহভাবে ঘটে যাচ্ছে। জাতিগত নিপীড়নের অংশ হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রামে কখনো সেটলার, কখনো সেনা-বিজিবি সদস্য কর্তৃক পাহাড়ি নারীদের ধর্ষণ, খুন গুম করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে লামায় বিজিবি’র তিন সদস্য কর্তৃক দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি প্রেসক্লাব গেইট থেকে শুরু হয়ে হাইকোর্ট চত্ত্বর প্রদক্ষিণ করে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (২২ আগষ্ট) রাত ১০টার সময় বান্দরবানে লামা উপজেলায় ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে রাংখতি ত্রিপুরা পাড়ায় ত্রিশডেবা ক্যাম্পের বিজিবি’র নায়েক রবিউল, সৈনিক মারুফ ও সুমন কর্তৃক দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় লামা থানায় মামলা দায়ের করা হলেও অভিযুক্ত বিজিবি সদস্যদের এখনো গ্রেফতার করা হয়নি।

———————————

সিএইচটিনিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.