লামা দরদরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিত্যক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে পাঠদান

0
0

Lamadordoripromarischoolবান্দরবান প্রতিনিধি : বান্দরবানের লামা উপজেলার রূপসী পাড়া ইউনিয়নের দরদরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিত্যক্ত ও ঝুকিঁপূর্ণ ভবনে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। বর্তমান বিদ্যালয়ে মোট শিক্ষার্থী সংখ্যা ২৩০জন। কিন্তু বিদ্যালয়ে দুইটি ভবনের মধ্যে ১টি পরিত্যক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ১৯৬৪ সালে ভবনটি আঁধা পাকা দিয়ে শুরু হয়েছিল এই বিদ্যালয়ের পদযাত্রা। ২০১৩ সালে এসে আঁধা পাকা ভবনটিকে এলজিইডি পরিত্যাক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ বলে ঘোষণা করে। কিন্তু বিদ্যালয়ে দিন দিন শিক্ষার্থী সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ২০০৫ সালে পিইডিপি-৩ আওতায় দুই কক্ষ বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মিত হয়। পাকা ভবনে দুইটি কক্ষে পর্যাপ্ত না হওয়ায় পরিত্যক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চালিয়ে যেতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের কার্যক্রম।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সিতা রঞ্জন বড়ুয়া প্রতিবেদককে জানান, পরিত্যক্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি ছাউনির টিন ছিদ্র, দরজা-জানালর অবস্থা আরো করুন। কয়েক দিন পর আসছে বর্ষার মৌসুম। ছিদ্র টিন হওয়ায় বৃষ্টি পড়লে পানি শ্রেণী কক্ষে পড়বে। যার ফলে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে ব্যাঘাত সৃষ্টি করবে।Lamaschool

বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র আজম খান জানাল কষ্টের কিছু কথা। সে জানায় বৃষ্টি হলে আমরা সবাই ক্লাশ বাদ দিয়ে কক্ষের এক কোণে গিয়ে অবস্থান করি। আমাদের বিদ্যালয়ে এ ভবনটির টিন ছিদ্র। তীব্র রোদের তাপ শ্রেণী কক্ষে এসে পড়ে, আর তা সহ্য করে নতুন কিছু শিখতে হচ্ছে।

বান্দরবান জেলা পরিষদসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ একটু সুনজর দিলে বিদ্যালয়ের সব সমস্যার সমাধান হবে বলে মনে করছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা। অবিলম্বে বিদ্যালয়টি সংস্কার করাসহ প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র সংকট নিরসনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.