শিক্ষা দিবসে খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটিতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ

0
1
খাগড়াছড়িও রাঙামাটি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম

 
শিক্ষা দিবস উপলক্ষে শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন দাবিতে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) আজ ১৭ সেপ্টেম্বর খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটির বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।  কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সংগঠনটি এ কর্মসূচি পালন করে।খাগড়াছড়ি জেলা সদর: বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি কলেজ শাখার উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার সকালে খাগাড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । সকাল ১১টায় খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের দক্ষিণ গেইট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে মহাজন পাড়ার সূর্যশিখা ক্লাবের সামনে থেকে ঘুরে এসে চেঙ্গী স্কোয়ারে সমাবেশ করে।

সমাবেশে পিসিপি’র খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজ শাখার সহ-সভাপতি সোনায়ন চাকমা সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিপুল চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের জেলা সাধারণ সম্পাদক শিখা চাকমা। জেসিম চাকমা সমাবেশে পরিচালনা করেন।

বক্তারা অবিলম্বে শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন, শিক্ষক নিয়োগে দূর্নীতি বন্ধ করা, ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পৃথক বাস সার্ভিস চালু, খাগড়াছড়িতে পাহাড়ি ছাত্রাবাস পুনরায় চালু করা, অ-উপজাতীয় ছাত্রাবাস সাধারণ ছাত্রাবাস হিসেবে চালু করা ও খাগড়াছড়ি আন্ত:জেলা বাস টার্মিনাল পূর্বের জায়গায় বহাল করার দাবি জানান।পানছড়ি: সকল জাতিসত্তার নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রাথিমিক শিক্ষাসহ পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবী দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে পানছড়ি থানায় আজ সকাল ১০টায় পানছড়ি কলেজ শাখার উদ্যোগে কলেজ থেকে মিছিল  বের করে। মিছিলটি পানছড়ি বাজার মুক্তমঞ্চে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। মিছিলে দুই শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অংশগ্রহন করে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম পানছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিবর্তন চকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি থানা শাখার সভাপতি বরুন চাকমা, পিসিপি থানা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রূপায়ন চাকমা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পিসিপি কলেজ শাখার সভাপতি রিটেন চাকমা এবং পরিচালনা করেন কলেজ শাখার অর্থ সম্পাদক কিরণ চাকমা।

বক্তারা বলেন, ১৯৫২ সালে বাংলা ভাষা স্বীকৃতির জন্য তকালীন পূর্বপাকিস্তানের ছাত্র-জনতা মহান ২১ ফেব্রুয়ারীর সংগ্রামের মাধ্যমে মাতৃভাষার স্বীকৃতি লাভ করে। আবার সেই দেশে সংখ্যলঘু জাতিসমূহের ভাষার কোন স্বীকৃতি নেই।

বক্তারা বলেন, পিসিপি’র ৫ দফা শিক্ষা দাবীর প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ২০১৪ সালে প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংখ্যালঘু জাতির ৬টি ভাষায় ( মারমা, চাকমা, ত্রিপুরা, সান্তাল, গারো, মুনিপুরী) পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন করতে যাচ্ছে বলে ঘোষণা দিয়েছেন। শুধুমাত্র ৬টি ভাষায় পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন করলে হবে না দেশের মোট ৪৫ টি সংখ্যালঘু জাতির মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালু করতে হবে।এছাড়া বক্তারা খাগড়াছড়িতে ছাত্র- ছাত্রীদের জন্য পৃথক বাস সার্ভিস চালু কারার জন্য দাবী জানান এবং ছাত্র-ছাত্রীদের পৃথক বাস সার্ভিস চালু না হওয়া পর্যন্ত পানছড়ি, দিঘীনালা, মহালছড়ি বাস স্টেশন পূর্বের জায়গায় বহাল রাখার দাবি জানান।

মহালছড়ি: মহালছড়ি থানার বাবুপাড়া থেকে সকাল ১১টায় একটি মিছিল শুরু হয়ে রোড ডিভিশন মাঠে গিয়ে সমাবেশ করে। মিছিলে কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ৩ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহন করে।

সমাবেশে পিসিপি থানা শাখার সহ সভাপতি তনয় চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ’র মহালছড়ি ইউনিটের প্রধান সংগঠক অলকেশ চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম মহালছড়ি থানা শাখার সভাপতি পলাশ চাকমা এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিসিপি মহালছড়ি কলেজ শাখার সভাপতি মেনন চাকমা। পিসিপি’র মহালছড়ি কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক বিনীত চাকমা সমাবেশ পরিচালনা করেন।

বক্তারা পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের জোর দাবি জানান।

দিঘীনালা : শিক্ষা সংক্রান্ত ৫দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ দীঘিনালা থানা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে ইউপিডিএফ কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে উপজেলা কার্যালয় ঘুরে চৌমুহনীতে সমাবেশ করা হয়। জহেল চাকমার পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র দীঘিনালা থানা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুরেশ চাকমা, দীঘিনালা কলেজ শাখার সভাপতি রুপেশ চাকমা, পিসিপি বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি নিউটন চাকমা, ডিওয়াইএফ দীঘিনালা থানা আহ্বায়ক জীবন চাকমা, এইচডব্লিউএফ দীঘিনালা শাখার অর্থ সম্পাদক ডেইজি চাকমা এবং ইউপিডিএফ দীঘিনালা ইউনিট সংগঠক কিশোর চাকমা।

কুদুকছড়ি(রাঙামাটি): আজ দুপুর ১.৩০টায় পিসিপি রাঙ্গামাটি জেলা শাখার উদ্যোগে রাঙ্গামাটির কুদুকছড়ির বড় মহাপুরম উচ্চ বিদ্যালয় গেট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে কুদুকছড়ি বাজার ঘুরে এসে স্কুল গেটে শেষ হয় এবং মহা পুরম উচ্চ বিদ্যালয় গেটে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক জিকো চাকমা এবং জেলা সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমা।

বক্তারা ১৯৬২ সালের তকালীন শরীফ শিক্ষা কমিশনের বিরুদ্ধে ছাত্র সমাজের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন এবং একই সাথে পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবি জানান।

সামাবেশে বেতছড়ি, ঘিলাছড়ি, বড়প্ররম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে তিন শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। সমাবেশ ২.৩০টার দিকে শেষ হয়।

নান্যাচর: পিসিপি নান্যাচর থানা শাখার উদ্যোগে আজ সকাল ১১.৩০টায়  উপজেলা মাঠ থেকে মিছিল শুরু হয়ে বাজার প্রদক্ষিণ করে আবার উপজেলা মাঠে এসে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সামাবেশে কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে আড়াই শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী সামাবেশে অংশগ্রহণ করে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র নান্যাচর থানা শাখার সহ-সভাপতি রিপন আলো চাকমা এবং ইউপিডিএফ’র নান্যাচর উপজেলা সংগঠক সুমেন চাকমা।

বক্তারা পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের জোর দাবি জানান এবং ২০১৩ সালে শিক্ষানীতির বিভিন্ন প্রস্তাবনার সমালোচনা করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৬২ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর তকালীন পাকিস্তান আমলে শরীফ কমিশনের অগণতান্ত্রিক, সাম্প্রদায়িক  শিক্ষা নীতির বিরুদ্ধে পূর্ব পাকিস্তানের ছাত্র সমাজ আন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়েছিল এবং দূর্বার আন্দোলনের উপর পাকিস্তানের পুলিশ ও সেনারা হামলা চালায়। এতে বাবুল, ওযাজিউল্লা সহ শতাধিক ছাত্রকে আহত করে। আন্দোলনের তিন দিনের মাথায় পাকিস্তান সরকার শরীফ শিক্ষা কমিশন স্থগিত করতে বাধ্য হয় এবং ছাত্র সমাজের বিজয় লাভ করে।   


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.