সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষার দাবিতে গুইমারায় পিসিপির বিক্ষোভ

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Guimara protest photo2গুইমারা: সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করা, অন্যায় ধরপাকড় বন্ধ ও মিথ্যা মামলা তুলে নেয়া এবং শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) মাটিরাঙ্গা ও গুইমারা উপজেলা শাখা।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় গুইমারা উপজেলার বাইল্যাছড়ির তৈমাতাই এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সভাপতি অমল ত্রিপুরা ও গুইমারা উপজেলা শাখার সভাপতি সমর জ্যোতি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ পার্বত্য চট্টগ্রামসহ ও সমতলে বসবাসরত সকল জাতিসত্তাসমূহের নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবিতে বিগত ২০০০ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০২ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও শিক্ষামন্ত্রী ড. ওসমান ফারুক বরাবর শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। সে সময় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়ে পিসিপিকে চিঠি দেওয়া হলেও তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। এরপর এসব দাবি বাস্তবায়নে ২০১১ সালে পিসিপি’র উদ্যোগে তিন পার্বত্য জেলায় স্কুল- কলেজে ধর্মঘট পালন করা হয়। পরে ২০১৩ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ৬টি জাতিসত্তার (মারমা, চাকমা, ত্রিপুরা, সান্তাল, মনিপুরী, গারো) মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুর ঘোষণা দিলেও এখনো তা বাস্তবায়নের মুখ দেখেনি।

বক্তারা অভিযোগ করে আরো বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১ নির্দেশনা জারির পর সরকার মাটিরাংগা, গুইমারা, রামগড়, মানিকছড়ি, লক্ষ্মীছড়িসহ পার্বত্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় নিপীড়ন-নির্যাতন বাড়িয়ে দিয়েছে। সেনাবাহিনীকে দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানি, ঘরবাড়ি তল্লাশি ও অন্যায় ধরপাকড়, ভূমি বেদখল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল হাজতে পাঠানো হচ্ছে। এসব নির্যাতন-হয়রানি থেকে স্কুল-কলেজে পড়–য়া শিক্ষার্থীরাও বাদ যাচ্ছে না। ফলে এলাকায় শিক্ষার্থীদের উপর এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ছে।

বক্তারা আরো বলেন, সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি না করে উচ্চ শিক্ষার প্রলোভন দেখাচ্ছে। যা পাহাড়ি জনগণের সাথে প্রতারণা ছাড়া আর কিছুই নয়।

বক্তারা সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে এবং সরকারের অব্যাহত দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার জন্য ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

বক্তারা অবিলম্বে মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫দফা বাস্তবায়ন, অন্যায় ধরপাকড় ও দমন-পীড়ন বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করা এবং মানিকছড়ি-রামগড়সহ বিভিন্ন এলাকায় পাহাড়িদের জায়গা-জমি বেদখল বন্ধ করার জোর দাবি জানিয়েছেন।
——————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.