সন্তু লারমাকে আঞ্চলিক পরিষদ থেকে পদত্যাগের আহ্বান ৭ সংগঠনের

0
1

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিএইচটিনিউজ.কম
পার্বত্য চট্টগ্রামে পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের দাবিতে আন্দোলনরত রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর সহযোগী ৭টি সংগঠন ( গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, হিল উইমেন্স ফেডারেশন, প্রতিরোধ সাংস্কৃতিক স্কোয়াড, সাজেক ভূমি রক্ষা কমিটি, সাজেক নারী সমাজ ও ঘিলাছড়ি নারী সমাজ) আজ  রোববার দেয়া এক যৌথ বিবৃতিতে শনিবার রাংগামাটিতে পাহাড়িদের বাড়িঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বহিরাগত সেটলারদের পরিকল্পিত হামলার পরিপ্রেক্ষিতে সন্তু লারমাকে ঠুঁটো জগন্নাথ মার্কা আঞ্চলিক পরিষদ থেকে পদত্যাগ করে জনগণের আকাঙ্খার প্রতি সম্মান জানানোর আহ্বান জানানো হয়েছে
বিবৃতিতে ৭ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বলেন, গত চৌদ্দ বছরেও সরকার চুক্তি বাস্তবায়ন করে নি, বাস্তবায়ন করার সদিচ্ছাও সরকারের নেইঅথচ চুক্তির নাম ভাঙিয়ে শেখ হাসিনার সরকার দেশে-বিদেশে প্রশংসা কুড়িয়েছে, ব্যক্তিগতভাবে শেখ হাসিনা অনেক পুরস্কার-ডিগ্রিও কামিয়েছেনঅন্য দিকে পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি জনগণের উপর চলছে একের পর এক সহিংস আক্রমণগতকাল শনিবার রাঙামাটিতে সংঘটিত ঘটনা এর ধারাবাহিকতারই অংশ মাত্রঅথচ তারপরও সন্তু লারমা ব্যক্তি খায়েশ চরিতার্থের লক্ষ্যে আঞ্চলিক পরিষদের গদি আঁকড়ে রয়েছেন
বিবৃতিতে ৭ সংগঠনের নেতারা আরও বলেন, সন্তু লারমার উচিত ১৯৯২ সালে তকালীন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গৌতম দেওয়ানের মতো আঞ্চলিক পরিষদ থেকে পদত্যাগপূর্বক সরকার ও সেনাবাহিনীর উগ্র সাম্প্রদায়িক কার্যকলাপের মুখোশ উন্মোচন করে দিয়ে প্রতিবাদ জানানো এবং জনগণের আশা-আকাঙ্খার প্রতি সম্মান জানিয়ে অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে যুক্ত হওয়া
বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি নতুন কুমার চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের (পিসিপি) কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে সুমেন চাকমা ও থুইক্য চিং মারমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি কণিকা দেওয়ান, প্রতিরোধ সাংস্কৃতিক স্কোয়াড (পিএসএস)-এর সাধারণ সম্পাদক আনন্দ প্রকাশ চাকমা, সাজেক ভূমি রক্ষা কমিটির সভাপতি জ্ঞানেন্দু চাকমা, সাজেক নারী সমাজের সভানেত্রী নিরূপা চাকমা ও ঘিলাছড়ি নারী সমাজের সভানেত্রী সুমতি চাকমা

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.