সাজেকে সেনা সদস্য কর্তৃক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ

1
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
Protest rally, 20 Feb 2014রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের লক্ষ্মীছড়িতে সেনা সদস্য কর্তৃক এক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ প্রচেষ্টার প্রতিবাদে হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

আজ ২০ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার সকাল ১১.৩০ টায় খাগড়াছড়ি উপজেলা পরিষদ মাঠ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি চেঙ্গী স্কোয়ার হয়ে মহাজন পাড়ার দিকে যেতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। এতে পুলিশের সাথে মিছিলকারীদের সামান্য ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পরে চেঙ্গী স্কোয়ারে তারা এক প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, হিল উইমেন্স ফেডারেশন খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শিখা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি জিকো ত্রিপুরা ও পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখার দপ্তর সম্পাদক বিজয় চাকমা। খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সদস্য জেসীম চাকমা সমাবেশ পরিচালনা করেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি নারীরা চরমভাবে নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে। ঘরে-বাইরে কোথাও তাদের নিরাপত্তা নেই। সেটলার বাঙালিদের পাশাপাশি সেনা সদস্যদের কর্তৃক একের পর এক নারী নির্যাতেনের ঘটনা ঘটেই চলেছে।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ১৮ ফেব্রুয়ারী বাঘাইছড়ির সাজেক ইউনিয়নের লক্ষ্মীছড়িতে লক্ষ্মীছড়ি সেনা ক্যাম্পের ওয়ারেন্ট অফিসার(সুবেদার) কাদের ও তার সহযোগী কর্তৃক এক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ প্রচেষ্টা চালানো হয়েছে। এর কয়েক মাস আগে দিঘীনালায় এক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ প্রচেষ্টাকালে এক সেনা সুবেদার জনতার হাতে ধরা পড়লেও তার কোন শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়নি।

বক্তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতন সহ সকল ধরনের নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাবেশ থেকে সেনা সদস্য কর্তৃক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে লক্ষ্মীছড়ি সেনা ক্যাম্প প্রত্যাহার ও ধর্ষণ চেষ্টাকারী সুবেদার কাদের ও তার সহযোগীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, পাহাড়ি নারীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ ও  পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনী প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে মিছিলটি চেঙ্গী স্কোয়ার থেকে আবারো উপজেলা পরিষদ মাঠে এসে শেষ হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টার দিকে সাজেক ইউনিয়নের লক্ষ্মীড়ি সেনা ক্যাম্পের ওয়ারেন্ট অফিসার(সুবেদার) মো: কাদের সিপাহী বাশারকে নিয়ে লক্ষ্মীছড়ি মুখ গ্রামের একটি বাড়িতে গিয়ে বাড়িতে থাকা এক পাহাড়ি নারীকে(২৮) একা পেয়ে ঝাপটে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় বলে ভিটটিম ওই নারী ও গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেছেন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.