সারাদেশে নারী-শিশু নির্যাতন ও বিচারহীনতার প্রতিবাদে সংহতি সমাবেশ

0
50

ঢাকা।। সারাদেশে অব্যাহত নারী-শিশু ধর্ষণ নিপীড়ন নির্যাতন ও বিচারহীনতা এবং রাষ্ট্রীয় নির্বিকারত্বের প্রতিবাদে এবং খাগড়াছড়িতে পাহাড়ি তরুণী, সিলেটে এমসি কলেজে নারী গণধর্ষণ এবং সাভারে নীলা রায় হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সংহতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (০১ অক্টোবর) বিকালে শাহবাগে বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এই সংহতি সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংহতি সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের সভাপতি সীমা দত্ত।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন- আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম, ডক্টরস্ প্ল্যাটফর্ম ফর পিপলস হেলথ-এর কেন্দ্রীয় সদস্য ডা. মুজিবুল হক আরজু, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক রেহেনুমা আহমেদ, লেখক-মানবাধিকার কর্মী-হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইলিরা দেওয়ান, শিক্ষক শামীম জামান, লেখক ও গল্পকার মাহামুদুল হক আরিফ, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুনয়ন চাকমা এবং চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় নেতা সুস্মিতা রায় সুপ্তি।

সমাবেশে বক্তারা রাষ্ট্রীয় নির্বিকারত্বের তীব্র সমালোচনা করেন। অব্যাহতভারে নারী ধর্ষণ,খুন এবং নির্যাতনের জন্য বিচারহীনতা, ক্ষমতাসীনদের পৃষ্ঠপোষকতাকে দায়ী করে বক্তারা বলেন, “বর্তমানে সমাজে কেউই নিরাপদ নয়, মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই এখানে। সাম্প্রতিক সময়ে সাবা দেশে ঘটে যাওয়া নারী নির্যাতনের ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে তাতেও বাধা দিয়েছে রাষ্ট্রীয় পুলিশ বাহিনী যা গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেয়ার জলজ্যান্ত উদাহরণ।”

সমাবেশ থেকে দাবি জানানো হয় অবিলম্বে নারীরসহ সমাজের সকল মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার এবং সাম্প্রতিক নারী নির্যাতনসহ সকল নারী নির্যাতনের বিচার দাবি করেন। অন্যথায় এর বিরুদ্ধে জনগণ দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছেন সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ব্যক্তিত্ব। সংহতি জানিয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক সামিনা লুৎফা নিত্রা, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশনস্ সিস্টেমস্ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোশাহিদা সুলতানা রিতু, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগি অধ্যাপক সিত্তুল মুনা হাসান, নতুন দিগন্ত পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মযহারুল ইসলাম বাবলা, কথাসাহিত্যিক রাখাল রাহা, অ্যাকটিভিস্ট এবং ফটোগ্রাফার সাইফুল ইসলাম অমি, গবেষক মাহা মির্জা, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাবর্ণি সরকার, কবি-গল্পকার-ঔপন্যাসিক নভেরা হোসেন, চলচ্চিত্র সমালোচক বিধান রিবেরু। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.