সিএইচটি কমিশনের উপর হামলার প্রতিবাদে ঢাকায় পিসিপির বিক্ষোভ সমাবেশ

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
Dhakademo,6 July 2014ঢাকা: বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) ঢাকা শাখা রাংগামাটিতে সিএইচটি কমিশনের উপর সেনা সমর্থিত উগ্র সাম্প্রদায়িক সংগঠন সমঅধিকার সহ কয়েকটি সংগঠন কর্তৃক  হামলা এবং দীঘিনালায় দুই জন পিসিপি নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে ও তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ৬ জুলাই রবিবার বিকালে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে  বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

ঢাকা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিনয়ন চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক বিলাস চাকমা, সহ-সভাপতি চন্দ্রদেব চাকমা এবং হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমা।

বক্তারা বলেন, গত ৫ জুলাই রাংগামাটি শহরে সেনা সমর্থিত উগ্রসাম্প্রদায়িক সংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রাম সফররত সিএইচটি কমিশনের সদস্যদের গাড়ি বহরে উদ্দেশ্যমূলক পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে। তাদের হামলায় সিএইচটি কমিশনের ইলিরা দেওয়ান ও ড.ইফতেখারুজ্জামান আহত হন। বক্তারা বলেন, তাদের এ হামলার উদ্দেশ্যে হল পার্বত্য চট্টগ্রামে মানবধিকার সংস্থাগুলো যাতে আসতে না পারে এবং এখানকার মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা, সাম্প্রদায়িক হামলা, সেনা নির্যাতন-নিপীড়নগুলো যাতে বহির্বিশ্বে প্রকাশ হতে না পারে।

বক্তারা এ হামলাকে একটি ন্যাক্কারজনক এবং মানবধিকারের উপর হামলা হিসেবে অভিহিত করে প্রশাসনের সমালোচনা করে বলেন, কমিশনের সদস্যদের সফরের স্থান প্রশাসনের নাকের ডগায় হলেও প্রশাসন তাঁদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে।

বক্তারা আরও বলেন, সিএইচটি কমিশনের মত মানবাধিকার সংস্থার উপর এ হামলা প্রমাণ করে সেটলার ও তাদের সংগঠনগুলো কতটা বেপরোয়া। সেনা প্রশাসনের মদদ ও সমর্থন থাকাতে তারা এধরণের ঘটনা ঘটাতে সাহস পায়। সেনা প্রশাসনের ছত্রছায়ায় যেখানে মানবধিকার সংস্থার উপর হামলার সাহস হয়, সেখানে পাহাড়িদের উপর হামলা কতটা বেপরোয়া ও উগ্রভাবে হতে পারে তা এ হামলা থেকে বোঝা যায়। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সিএইচটি কমিশনের হামলাকারী সেটলারদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানান।

পিসিপি নেতা গ্রেফতার বিষয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, দীঘিনালার থানা শাখার নেতা জীবন চাকমা ও বাবুধন চাকমা গত ৪ জুলাই পিসিপির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল উপলক্ষে অর্থ সংগ্রহ করতে গেলে সেনাবাহিনী তাদের গ্রেফতার করে। বাংলাদেশে প্রত্যেক সংগঠন গণচাঁদা সংগ্রহ করে কাউন্সিল করে থাকে। এটা প্রত্যেক গণতান্ত্রিক সংগঠনের অধিকার। পিসিপিরও এই অধিকার রয়েছে। সেনাবাহিনী পিসিপির এই ন্যায্য অধিকারের উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ করেছে। সমাবেশে বক্তারা পিসিপি নেতাদের গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে প্রেসক্লাব থেকে একটি মিছিলটি পল্টন মোড় ঘুরে আবার প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।
————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.