সিন্দুকছড়িতে নিরীহ গ্রামবাসীর জুম ঘরে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে দীঘিনালায় বিক্ষোভ সমাবেশ

0
82

দীঘিনালা প্রতিনিধি ।। গুইমারা উপজেলার সিন্দুকছড়ি ইউনিয়নের ঠান্ডাছড়ি এলাকায় সেনাবাহিনী কর্তৃক নিরীহ গ্রামবাসী ননজয় ত্রিপুরার জুম ঘরে অগ্নিসংযোগ ও আরেক গ্রামবাসীর ঘর ভাংচুরের প্রতিবাদে দীঘিনালায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার (৩ জুলাই ২০২১) বেলা ২ টায় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন দীঘিনালা উপজেলা শাখার যৌথ উদ্যোগে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সমাবেশে দীঘিনালা উপজেলা শাখার যুব নেতা রিপন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, ইউপিডিএফ সদস্য ইয়েন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার আহ্বায়ক এন্টি চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের দীঘিনালা উপজেলা শাখার সভাপতি রিটেন চাকমা, পিসিপি’র দীঘিনালা উপজেলা শাখা ছাত্র নেতা রাহুল চাকমা।

বক্তারা গত ২৯ জুন দিবাগত মধ্যরাতে সিন্দুকছড়ির ঠান্ডাছড়িতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক নিরীহ গ্রামবাসী ননজয় ত্রিপুরার জুম ঘর অগ্নিসংযোগ পুড়িয়ে দেয়া ও আরেক গ্রামবাসীর ঘর ভেঙে দেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে তথাকথিত উন্নয়ন ও পর্যটন স্থাপনের নামে সাধারণ মানুষের বসতভিটা বেদখল করা হচ্ছে। পাহাড়ি জনগণের উপর রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্র, নিপীড়ন বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারের মদদে সেনাবাহিনী পাহাড়ি জনগণকে নিজ জায়গা ও বাস্তুভিটার বসবাস করার মৌলিক অধিকার কেড়ে নিচ্ছে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে ননজয় ত্রিপুরার জুমঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা সুষ্ঠু তদন্ত করে জড়িত সেনা সদস্যদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান। একই সাথে তারা কথিত উন্নয়ন-পর্যটনের নামে পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি বেদখল ও পাহাড়ি জনগণকে বাস্তুভিটা থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র বন্ধের আহ্বান জানান।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.