সুবলঙে ইউপিডিএফ সদস্য গ্রেফতারের ঘটনা সাজানো নাটক ও পূর্ব পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র : ইউপিডিএফ

0
1

রাঙামাটি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
রাঙামাটি জেলার বরকল উপজেলার সুবলঙে গতকাল শুক্রবার ৭ অক্টোবর রাতে ইউনাইটেড পিপলডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) ১২ জন সদস্যকে গ্রেফতারের ঘটনাকে ইউপিডিএফ রাঙামাটি জেলা ইউনিটের সংগঠক অলকেশ চাকমা“সাজানো নাটক ও পূর্ব পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র” আখ্যায়িত করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন

উক্ত ঘটনা সম্পর্কে অলকেশ চাকমা বলেন, ইউপিডিএফ এর সুবলঙ অফিসটি তিন দিকে কাপ্তাই লেকের পানি দ্বারা পরিবেষ্টিত ও অন্যদিকে কয়েকশত গজ দূরে পাহাড়ের চূড়ায় রয়েছে একটি সেনা ক্যাম্প৷ রাত ৯টার দিকে একদল সেনা সদস্য অফিসে আসেন এবং এক সেনা অফিসার সেখানে অবস্থানরত গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম জুরাছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি মহারঞ্জন চাকমাসহ ১২ জন ইউপিডিএফ সদস্যকে অফিসের ছাদে নিয়ে গিয়ে গল্পগুজব করতে থাকেন কিছুক্ষণ পর ইউপিডিএফ-এর একজন সদস্য নীচে নেমে খাওয়ার পানি আনতে চাইলে তিনি তাকে “এখন না, এখন না” বলে বাধা দেন এর কিছু সময় পর নীচে “পাইছি, পাইছি” বলে চিত্‍কার শোনা যায় সুবলঙ এলাকাটি বরকল থানার অধীনে হলেও আর্মিদের সাথে এ সময় রাঙামাটির কোতোয়ালি থানা থেকে একদল পুলিশ সদস্যও উপস্থিত ছিলেন৷ পরে আর্মিরা একটি ভাঙা ৯এমএম পিস্তল, ২রাউন্ড কার্তুজের গুলি, কয়েক হাজার টাকা ও কিছু কাগজপত্র অফিস থেকে উদ্ধার করেছে বলে উপস্থিত লোকজনের কাছে দাবি করে রাত পৌনে একটার দিকে ইউপিডিএফ সদস্যদেরকে রাঙামাটির কোতোয়লি থানায় চালান দেয়া হয়

অলকেশ চাকমা ইউপিডিএফ-এর সুবলঙ অফিস থেকে অস্ত্রসহ বেআইনী জিনিসপত্র উদ্ধারের দাবিকে সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করে বলেন, “এই অস্ত্র উদ্ধার নাটকের নেপথ্যে রয়েছে সন্তু গ্রুপ জেএসএস এর সন্তু গ্রুপ দীর্ঘ দিন ধরে উক্ত অফিসটি দখলের জন্য মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালিয়ে আসছে৷ গত জরুরী অবস্থার সময় তারা রাঙামাটি থেকে সদলবলে গিয়ে অফিসটি জোরপূর্বক তাদের দখলে নেয়ার প্রচেষ্টা চালায় কিন্তু সাধারণ জনগণের প্রতিরোধের মুখে তাদের সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়৷ জোর করে দখলে ব্যর্থ হওয়ার পর তারা ষড়যন্ত্রের আশ্রয় নেয়৷ এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই গতকাল সন্তু গ্রুপের লোকজন নেপথ্যে থেকে ইউপিডিএফ অফিসে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের নাটকটি মঞ্চস্থ করেছে

ইউপিডিএফ নেতা অবিলম্বে আটককৃতদের মুক্তি ও তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়ে থাকলে তা তুলে নেয়ার দাবি জানান


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.