সেনাবাহিনীর নানা ষড়যন্ত্র সত্ত্বেও লক্ষ্মীছড়ি বাজার বয়কট অব্যাহত

0
0

Laxmichariলক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি।। সেনাবাহিনীর নানা ষড়যন্ত্র, হুমকি-ধামকি সত্ত্বেও খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি বাজার বয়কট অব্যাহত রয়েছে। এলাকার জনগণ বিভিন্ন জায়গায় অস্থায়ীভাবে বাজার বসিয়ে স্বতঃস্ফুর্তভাবে এই বাজার বয়কট কর্মসূচি পালন করছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমার মুক্তির দাবিতে গত ৩ জানুয়ারি শান্তিপূর্ণ সমাবেশে সেনা-সেটলার হামলার প্রতিবাদে এই বাজার বয়কট কর্মসূচি চলছে।

এদিকে এলাকার পাহাড়ি জনগণ বাজারে না আসায় সেনাবাহিনী নানা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

গত রবিবার (২২ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় জোন কমান্ডার  লে.কর্নেল আবুল কালাম সামসুদ্দিন রানা’র নেতৃত্বে ৫টি পিকআপে করে সেনাবাহিনীর একদল সদস্য স্থানীয় সাংবাদিক মোবারক হোসেনকে সাথে নিয়ে যতীন্দ্র কার্বারী পাড়ায় যায়। পরে ওই সাংবাদিকের সামনে সেনারা গ্রামের এক দোকানদারকে ডেকে এনে বাজার কোথায় থেকে আনো, লক্ষ্মীছড়ি বাজারে যাও না কেন? ইত্যাদি জিজ্ঞাসা করে। এর জবাবে দোকানদার বলেন, ‘লক্ষ্মীছড়ি বাজারে গেলে আপনাদের সেনাবাহিনী ও বাজারের সেটলার বাঙালিরা পাহাড়িদের মারধর করে, তাই আমরা বাজারে যাই না। বিভিন্ন স্থান থেকে আমরা বাজার সংগ্রহ করে থাকি’।

দোকানদারের এহেন উত্তর পেয়ে সেনারা ‘তোমরা এখানে শাকসবজি ক্রয়-বিক্রয় করতে পারবে না ও দোকান খুলতে পারবে না’ বলে শাঁসায়।

এদিকে, এলাকার লোকজন অভিযোগ করে সিএইচটিটি নিউজ ডটকমকে বলেন, সেনাবাহিনী যে সাংবাদিককে সাথে নিয়ে এসেছে তিনি একজন সেনাবাহিনীর পোষ্য সাংবাদিক। উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমাকে সেনাবাহিনী কর্তৃক অন্যায়ভাবে আটক ও নির্যাতন করলেও এই সাংবাদিক নিরপেক্ষ কোন রিপোর্ট করেনি, বরং চেয়ারম্যানের নামে ও এলাকার পাহাড়ি জনগণের বিরুদ্ধে তার পরিচালিত অনলাইন মিডিয়ায় নানা অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে, একই দিন দেওয়ান পাড়া, বান্দরকাবাসহ কয়েকটি এলাকা থেকে পাহাড়িরা ফটিকছড়ি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে বাঁশ বিক্রি করতে চাইলে সেটলাররা ব্যবসায়ীদের বাধা দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, গত ৩ জানুয়ারি সুপার জ্যোতি চাকমাকে আটকের প্রতিবাদে ও তাঁর নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা সদরে আয়োজিত শান্তিপূর্ণ মিছিল-সমাবেশে সেনা-সেটলাররা হামলা চালায়। এর প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে সচেতন নাগরিক সমাজ, সুপার জ্যোতি চাকমা মুক্তি সংগ্রাম কমিটিসহ কয়েকটি সংগঠন এই বাজার বয়কট কর্মসূচির ডাক দেয়।
—————–

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.