সেনাবাহিনীর নির্যাতনে টিবিরাছড়িতে পাড়া প্রধানসহ তিন নিরীহ গ্রামবাসী আহত

0
0

নান্যাচর (রাঙামাটি) : রাঙামাটি জেলাধীন নান্যাচরের টিবিরাছড়িতে সেনাবাহিনীর নির্যাতনে পাড়া প্রধান অন চাকমা চাকমা সহ একই পাড়ার তিন নিরীহ গ্রামবাসী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

Army-tortureআহত ব্যক্তিরা হলেন- ১) অন চাকমা(৬৫ পাড়া প্রধান, পিতা: সুন্দর মোহন চাকমা গ্রাম: টিবিরাছড়ি, ২) কালো বিকাশ চাকমা(১৭) পিতা: অন চাকমা, গ্রাম: টিবিরাছড়ি, ৩) সাব্বে চাকমা(৩৫) পিতা: রেনুমোহন চাকমা, গ্রাম: টিবিরাছড়ি।

জানা যায়, গতকাল ৭ অক্টোবর সকাল ৯ টার দিকে খাগড়াছড়ি রিজিওন এবং গুইমারা রিজিওন থেকে ১০-১২টি জীপ নিয়ে সেনাবাহিনীরা রাঙ্গামাটি নান্যাচরের থানাধীন ফরেস্ট অফিস, আঠার মাইল, জরবো মাজন পাড়া ও টিবিরাছড়ি পাড়ায় নিরীহ জুম্মদের ঘরবাড়িতে ব্যপক তল্লাসি চালায় এবং ইউপিডিএফ কর্মীদের খোজ করতে থাকে।

এলাকাবাসীরা তথ্যনুযায়ী, সেনারা টিবিরাছড়িতে গিয়ে পাড়াপ্রধান(কারবারী) অন চাকমা’র কাছ থেকে ইউপিডিএফ কর্মীদের খোজ করতে থাকে। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে কোন উপযুক্ত তথ্য দিতে না পারায় সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাকে শারিরীরিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। সেনাদের নির্যাতনে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার ছেলে কালো বিকাশ চাকমা সেনাদের নির্যাতনের হাত থেকে পিতাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে সেনারা তাকেও শারিরিক নির্যাতন করে গুরুতর আহত করে। তাদের বাপ-ছেলেকে গুরুতর আহত করার পর সেনাবাহিনীর সদস্যরা পার্শ্ববর্তী বাড়িতে গিয়ে একই কায়দায় জিজ্ঞাসাবাদের পর বাড়ির মালিক সাব্বে চাকমাকেও মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে গুরুতর আহত করে মাটিতে ফেলে চলে আসে। এরপর সেনারা একই পাড়ার তপন চাকমার বাড়িতে যায়। সে সময় তপন চাকমা বাড়িতে না থাকায় তার স্ত্রী সুমিতা চাকমাকে বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং পরে  বাড়ি তল্লাসি করতে থাকে। বাড়িতে তল্লাসি চালানোর এক পর্যায়ে কোন কিছু না পেয়ে বাড়ির ভিতরে মাটি খুঁড়তে থাকে। এতেও কোন কিছু না পেয়ে সেনারা তপন চাকমার স্ত্রী সুমিতা চাকমাকে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্যভাবে গালিগালাজ করে। অন্যদিকে আরেকদল সেনাবাহিনী সদস্য একই পাড়ার রীতায়ন চাকমা নামে এক কলেজ ছাত্রকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে কোন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য না পাওয়াতে তার কলেজের বইপত্রসহ যাবতীয় সরঞ্জামাদি বাইরে ছুঁড়ে ফেলে দেয়।

পরে চলে যাবার পথে সেনারা জরবো মাজন পাড়ার অনিল চাকমার বাড়িতে তল্লাসি চালায়। ব্যাপক তল্লাসির পর বাড়িতে অবৈধ কোন কিছু না পাওয়ায় বাড়ির সকল জিনিস পত্র ভাঙচুর করে দেয়।
—————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.