সেনাবাহিনীর বাধার মুখে মানিকছড়িতে ভুমি বেদখলের প্রতিবাদে গণবিক্ষোভ ও সমাবেশ

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Manikchari photo, 9.8.2015মানিকছড়ি : খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলায় মনাদং ও বক্রি পাড়া ও হাফছড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় সেটলার কর্তৃক ভুমি বেদখল, অন্যায় ধরপাকড় ও নির্যাতনের প্রতিবাদে আজ ৯ আগস্ট রবিবার সকাল ১১টায় মানিকছড়িতে গণবিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানিকছড়ি ভূমি রক্ষা কমিটির উদ্যোগে এলাকাবাসীর আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রথমে সেনাবাহিনী বাধা প্রদান করে। পরে সেনাবাহিনীর বাধা উপেক্ষা করে ৫ শতাধিক ছাত্র-যুব-নারী ও এলাকার জনসাধারণ উপজেলার গবমারা নামক স্থানে সমাবেশে মিলিত হয়।

এদিকে, সমাবেশ চলাকালে পুলিশসহ মানিকছড়ি উপজেলার ইউএনও যুথিকা সরকার সমাবেশস্থলে উপস্থিত হয়ে বিক্ষোভকারীদের বলেন, আজতো অদিবাসী দিবস, আপনারা কেন আদিবাসী র‌্যালী না করে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন? এতে উপস্থিত জনতা ইউএনওর প্রতিউত্তরে বলেন, সেটলার বাঙালিরা সেনা-প্রশাসনের সহযোগীতায় আমাদের জায়গা-জমি বেদখল দখল করছে, তার সুষ্ঠু সমাধান না হওয়ায় আমরা এই বিক্ষোভ সমাবেশ করছি। আমাদের সামনে এখন এটাই সবচেয়ে বড় সমস্যা।

মানিকছড়ি ভূমি রক্ষা কমিটির সভাপতি নিঅং মারমার (কার্বারী) সভাপতিত্বে ও ঊষা মারমার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন এলাকার ছাত্র প্রতিনিধি উষাঅং মারমা এবং যুব প্রতিনিধি রিপন চাকমা প্রমুখ।Manikchari photo1, 9.8.2015

সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় সেটলার বাঙালিরা মানিকছড়ির বক্রি পাড়া, মনাদং পাড়া এবং হাফছড়ি এলাকায় পাহাড়িদের ভোগ-দখলীয় ও রেকর্ডিয় জায়গা-জমি জোরপূর্বক বেদখল করে পাহাড়িদের উচ্ছেদের চেষ্টা চালাচ্ছে। এসব জায়গায় পাহাড়িরা ৪০-৫০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। শুধু তাই নয়, পাহাড়িদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে সেনাবাহিনী রাতে-বিরাতে ঘরবাড়ি ঘেরাও করে জায়গার মালিক ও ভূমি রক্ষা কমিটির নেতাদের আটকের চেষ্টা করছে। গত ৬ আগস্ট ভূমি রক্ষা কমিটির সদস্য সচিব রুইচিং প্রু মারমাকে সেনাবাহিনী  নিজ বাড়ি থেকে আটক করে গুইমারা ব্রিগেডে নিয়ে গিয়ে মানসিক নির্যাতন ও হয়রানি করেছে।

বক্তারা আরো বলেন, অন্যায় ও জোরপূর্বকভাবে সেটলার বাঙালি কর্তৃক ভূমি বেদখলের প্রতিবাদে স্মারকলিপি, মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হলেও প্রশাসন এখনো সুষ্ঠু সমাধান দিতে পারেনি। উপরন্তু প্রশাসন সেটলার পক্ষে কাজ করছে বলে বক্তারা অভিযোগ করেন।

সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে বক্রিপাড়া, মনাদং পাড়া ও হাফছড়ি এলাকা সহ আশে-পাশের এলাকায় সেটলার বাঙালি কর্তৃক পাহাড়িদের জায়গা-জমি জোরপূর্বক বেদখল প্রক্রিয়া বন্ধ করা এবং সেনাবাহিনী কর্তৃক হয়রানি, বাড়ি তল্লাশি ও আটকের প্রচেষ্টা বন্ধের জোর দাবি জানান।
——————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.