সেনা সদস্য অপহরণের সাথে জড়িত থাকায় রামগড়ে যুবলীগের ৯ সদস্যকে বহিস্কার

0
2

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
image_38938_0সেনা সদস্যকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টার অভিযোগে অভিযুক্ত খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলা যুবলীগের ৯ সদস্যকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। শনিবার যুবলীগ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কে এম ইসমাইল হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, এই নেতা কর্মীরা দলের শৃংখলা ভঙ্গ করে দলের দীর্ঘদিনের সুনাম নষ্ট করেছে। এ কারণে যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের মৌখিক নিদেশের নয় নেতা কর্মীকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃতরা হলেন, ফারুক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, রামগড় উপজেলা শাখা, মো: শামীম, সাধারন সম্পাদক, রামগড় পৌর শাখা, মো: শিপন, সভাপতি, ৮নং ওয়ার্ড শাখা, মো: ফারুক, সাধারন সম্পাদক, ৯নং ওয়ার্ড শাখা, মো: সুমন, সভাপতি, ৪নং ওয়ার্ড শাখা, মো: মিলন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, ৯নং ওয়ার্ড শাখা, মো: ফরিদ, মো: নজরুল, মো: রুবেল, সদস্য, রামগড় উপজেলা শাখা।

গত ৩০ মার্চ মোবাইলের মাধ্যমে বন্ধুত্বের সূত্র ধরে বগুড়া সেনানিবাসের নান্টু আলী নামে এক সেনা সদস্য রামগড় উপজেলায় বেড়াতে আসার কথা বলে তাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবী করা হয়। পরে র‌্যাব ও রামগড় পুলিশের যৌথ অভিযানে সেনা সদস্যকে উদ্ধার করা হয় ও অপহরণের সাথে জড়িত রামগড় উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন,পৌর যুবলীগের সাধারন সম্পাদক শামিম মাহমুদ ও ৫নং পৌর ওর্য়াড যুবলীগের সভাপতি শিপন তিন নেতাকে আটক করা হয় এবং এ ঘটনার মামলায় আরো ছয়জনকে আসামী করা হয়। এই ঘটনায় জড়িত থাকা ও সংগঠনের সুনাম ক্ষুন্ন করার কারণে এই নয় নেতাকর্মীকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। আটক তিন বর্তমানে চট্টগ্রাম-৭ এর হেফাজতে আছে বলে রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জোবাইরুল হোসেন জানিয়েছেন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.