হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ১১তম কেন্দ্রীয় কাউন্সিল সম্পন্ন নিরূপা চাকমা সভাপতি পুনঃনির্বাচিত, সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা

0
1

HWF council,09.03.17

খাগড়াছড়ি: ‘সংগঠনের ভিত্তি সুদৃঢ় করতে অধিকতর মনোযোগী হোন’ এই আহ্বানে ’সংগঠনের শক্তি কেবল সংখ্যায় নয়, নির্ভর করে প্রতিটি সভ্যের দক্ষতা ও যোগ্যতার উপর’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ১১তম কেন্দ্রীয় কাউন্সিল গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ ২০১৭) খাগড়াছড়িতে সম্পন্ন হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে নিরূপা চাকমা পুনঃনির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া কাউন্সিলে মন্টি চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও দ্বিতীয়া চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছে।

কাউন্সিলে বিভিন্ন শাখার প্রতিনিধি ও পর্যবেক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

খাগড়াছড়ি জেলা সদরে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি নিরূপা চাকমা। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ইউপিডিএফ সংগঠক মিঠুন চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সভাপতি সোনালী চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি বিনয়ন চাকমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় ক্রীড়া সম্পাদক পলাশ চাকমা।

কাউন্সিল অধিবেশন শুরুতে শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে ২ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

কাউন্সিল অধিবেশনে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জাতিসত্তাগুলোর অস্তিত্ব বিলীন করে দেয়ার জন্য সরকার বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে নারী নির্যাতন, খুন, ধর্ষণসহ আন্দোলনকারী সংগঠন ও সাধারণ জনগণের উপর নিপীড়ন-নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে।

বক্তারা বলেন, আমাদের আন্দোলন কেবল নারী অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন নয়। আমাদের আন্দোলন জাতীয় মুক্তির আন্দোলন। সরকার আমাদেরকে কখনো উপজাতি, কখনো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী হিসেবে পরিচয় করিয়ে উপনিবেশিক শাসন-শোষণ চালিয়ে যাচ্ছে। তাই জাতি হিসেবে টিকে থাকার জন্য আমাদেরকে লড়াই-সংগ্রাম করতে হবে। আর এক্ষেত্রে  নারীদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

এরপর কাউন্সিলের দ্বিতীয় অধিবেশনে বিভিন্ন শাখা থেকে আগত প্রতিনিধিরা এলাকাভিত্তিক বক্তব্য প্রদান করেন। তারা এলাকার বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

প্রতিনিধিদের বক্তব্য শেষে আর্থিক রিপোর্ট প্রদান করেন মিনাকি চাকমা। এরপর সাংগঠনিক রিপোর্ট হাউজে পেশ করেন সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা। সাংগঠনিক রিপোর্টে পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশীয় পরিস্থিতি ও নারী নির্যাতনের সংক্ষিপ্ত চিত্র তুলে ধরা হয়। এছাড়া রিপোর্টে নারীদের আন্দোলনে অংশগ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। প্রতিনিধিদের বক্তব্যের ভিত্তিতে সংযোজন-বিয়োজনের পর রিপোর্টটি পাশ হয়।

এরপর নিরূপা চাকমাকে সভাপতি, মন্টি চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও দ্বিতীয়া চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৩ সদস্যের নতুন কমিটি হাউজে উপস্থাপন করা হয়। উপস্থিত প্রতিনিধিদের সম্মতির ভিত্তিতে কমিটি পাশ করা হয়।

নতুন কমিটির সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সভাপতি সোনালী চাকমা।

শপথ গ্রহণ শেষে সোনালী চাকমা নতুন কমিটির সদস্যসহ কাউন্সিলে উপস্থিতি প্রতিনিধি-পর্যবেক্ষকদের উদ্দেশ্যে প্রেরণামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।
—————

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.