৫ নারী সংগঠনের ‘স্ব স্ব জাতিসত্তার জাতীয় পোশাক পরিধান’ কর্মসূচি আজ

0
0
nijosso dress
# ফাইল ছবি

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি।। আজ ৯ এপ্রিল ২০১৭, রবিবার পার্বত্য চট্টগ্রামের ৫ নারী সংগঠনের ঘোষিত স্ব স্ব জাতিসত্তার জাতীয় পোশাক পরিধান কর্মসূচি। সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা, সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও নারী আত্মরক্ষা কমিটির আহ্বায়ক এন্টি চাকমা এক বিবৃতিতে স্কুল-কলেজ, অফিস-আদালত, হাটবাজারসহ সর্বত্র স্ব স্ব জাতিসত্তার জাতীয় পোশাক পরিধান করে আজকের কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের নারীদের নানা দিক থেকে চাপের মধ্যে রাখা হয়। সাংস্কৃতিক দিক থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামের নারীদের বিভ্রান্ত করা ও বিপথে পরিচালিত করার ষড়যন্ত্র করা হয়ে থাকে। গৌরবজনক জাতীয় পরিচিতিকে ভুলুন্ঠিত করার প্রচেষ্টা চালানো হয়। নির্যাতন নিষ্পেষণ ও সাংস্কৃতিক আধিপত্যের মাধ্যমে জাতিসত্তাসমূহের স্বকীয়তা ও স্বাতন্ত্র্যকে ধুলিস্যাত করার প্রচেষ্টা চালানো হয়। এই নিগৃহীত নিপীড়িত অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে পার্বত্য চট্টগ্রামের নারীদের সাংস্কৃতিকভাবে সচেতন হতে হবে বলে নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে জোর প্রদান করেন। এই সাংস্কৃতিক সচেতনতা সৃষ্টি করতে এবং নির্যাতন নিপীড়নের প্রতিবাদ জানাতে ৫ নারী সংগঠন এই কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এছাড়া নেতৃবৃন্দ বলেন, তথাকথিত আধুনিকতা ও হাল ফ্যাশনের নামে আমরা আমাদের জাতিসত্তার স্বকীয়তা ও সৌন্দর্যকে বিকৃত করতে পারি না। এ বিষয়ে নারী সমাজকে সচেতন সজাগ থাকতে হবে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতিসত্তাসমূহের অধিকারহীন মানবেতর অবস্থার কথা তুলে ধরতে ৫ নারী সংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রামের বৃহত্তর বৈসাবি(বৈসু-সাংগ্রাই-বিজু) উৎসবের প্রাক্কালে স্ব স্ব জাতীয় পোশার পরিধানের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। অতি সহজ এই কর্মসূচিতে পেশাজীবী-গৃহিনী, শিক্ষিত-অশিক্ষিত সকলে সহজেই অংশগ্রহণ করতে পারবে, এবং এই কর্মসূচিতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়া সকলেরই জরুরি কর্তব্য ও দায়িত্বের অন্তর্ভূক্ত।

নেতৃবৃন্দ পার্বত্য চট্টগ্রামে তীব্র দমনপীড়নের প্রতিবাদ ও নারীর নিরাপত্তা-সম্ভ্রম রক্ষা এবং জাতিসত্তার স্বাতন্ত্র্য ও স্বকীয়তাকে তুলে ধরার লক্ষ্যে ৫ নারী সংগঠনের গৃহীত এই বৃহত্তর কর্মসূচি সফল করার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রামের সকল নারী ও সচেতন জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।
——————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.